পোস্ট

ছবি
Free Seminar on "Study Work & Settle in Japan"!! জাপানিজ ভাষা শিখে অতি সহজে জাপান যাওয়ার সুযোগ - সেমিনারে অংশগ্রহণ করতে সিট বুক করুন (ফ্রি) এই লিঙ্কে: http://djit.ac/japan_reg/ Seminar Date: 29th & 30th December (Both) Day : Friday & Saturday. Time: 4:00 PM. Venue: Daffodil Japan IT Limited, Union Heights, level 8, 55-2, West Panthapath, Dhaka. (Besides Square Hospital) সরাসরি ফোন কল করে সিট বুক করুন: 01847140110 ও 01713493282. জাপানিজ প্রতিনিধির উপস্থিতিতে ফ্রী সেমিনারঃ Takashi Tsurugai, Japanese Language Specialist & Consultant at Daffodil Japan IT. জাপানের পড়াশোনার পরিবেশ ও উচ্চশিক্ষার বিস্তারিত বক্তব্য রাখবেনঃ Mahadee Hasan, Manager, DJIT. সেমিনারের বিশেষ আকর্ষণ, সুদূর জাপান থেকে বাংলাদেশে আপনাদের জন্যে বক্তব্য রাখতে আসছেন ড্যাফোডিল জাপান আইটির ম্যানেজিং ডিরেক্টর Toru Okazaki স্যার। # কেন_ড্যাফোডিল_জাপান_আইটি !! - ১০০% ভিসা প্রাপ্ত একমাত্র Japanese Language institute. - দক্ষ ভিসা প্রোসেসিং - উন্নত মানের শিক্ষা ব্যবস্থা, স

ড্যাফোডিল জাপান আইটি

ছবি
শিক্ষা ও যোগ্যতা, বিষয়ভিত্তিক পড়াশোনার সুযোগ www.djit.ac জাপানে পরাশুনা ও চাকরির বিষয়ে সহায়তার করার জন্য বাংলাদেশে ২০১৩  সাল থেকে কাজ করছে ড্যাফোডিল জাপান আইটি নামের প্রতিষ্ঠানটি। ২০১৩ সাল থেকে বিবিপি জাপান এবং ড্যাফোডিল গ্রুপের যৌথ উদ্যোগে প্রতিষ্ঠানটি কাজ করেছে। আইটি, সিএসসি, ইলেক্ট্রিক্যাল ও অন্য ইঞ্জিনিয়ারদের প্রচুর চাহিদা থাকার কারনে প্রতিষ্ঠানটি জাভা, পিএইচপি, অ্যানড্রয়েড, ওয়েবডেভেলপমেন্ট কোর্সে ট্রেনিং দিচ্ছে।এর মাধ্যমেদেশের ইঞ্জিনিয়াররা হয়ে উঠছেন আন্তর্জাতিক মানের।তাদের ট্রেনিং শেসে ড্যাফোডিল জাপান আইটি আয়োজন করছে বিভিন্ন জাপানিস কম্পানির জন্য ইন্টার্ভিউ সেশন।তাদের এ ট্রেনিং সেশন থেকে ট্রেনিং নিয়ে অনেকেই পারি জমাচ্ছেন জাপানের বড় বড় কোম্পানিতে। এজন্য ড্যাফোডিল জাপান আইটি এর রয়েছে স্পেশাল জাপানিজ ল্যাঙ্গুয়েজ কোর্স। এসব কোর্সে ক্লাস নেন জাপানি ও বাংলাদেশি শিক্ষকরা।এখান থেকে ভাষা শিখে অনেকই উচ্চ শিক্ষার জন্য জাপানের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পড়াশুনা করছে।জাপানে মানসম্মত শিক্ষার পাশাপাশি পার্টটাইম জবের প্রচুর সুযোগ রয়েছে।জাপানী এম বা সিশিথিল করেছে প্রশাশনিক জটিলতাকেও।এটি

উচ্চ শিক্ষা ও জাপান

ছবি
জাপানে শিক্ষার সুযোগ-সুবিধা বিশ্ব অর্থনীতিতে জাপানের অবস্থান তৃতীয়। চলমান পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে জাপান সরকার উদ্যোগ নিয়েছে তৃতীয় বিশ্বের দেশ গুলো থেকে  সম্ভাবনাময় জনশক্তিকে জাপানে চাকরি ও শিক্ষা অর্জনে উৎসাহিত করতে। এই দেশগুলোর তালিকার মধ্যে রয়েছে ভিয়েতনাম, বাংলাদেশ, ভারত, মালয়েশিয়া, নেপাল ও ফিলিপাইন।এসব দেশের দক্ষ জনশক্তিকে তুলনামূলক প্রতিযোগিতামূলক বেতন দিয়ে জাপানিজ কোম্পানিগুলো চাকরি দেয়ার জন্য নিয়ে যাচ্ছে জাপানে,পিছিয়ে নেই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো।প্রতি বছর এদেশ থেকে উল্ল্যেখযোগ্য সংখ্যক ছাত্রছাত্রী উচ্চ শিক্ষার জন্য পাড়িজমাচ্ছে জাপানে।জাপানের গ্লোবাল ৩০ ভিশন অনুযায়ী, জাপান বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে প্রায় তিন লক্ষ শিক্ষার্থী নেবে। এজন্য এগিয়ে এসেছে জাপানের বিভিন্ন ল্যাংগুয়েজ (ভাষাশিক্ষার) ইনস্টিটিউটগুলো। পড়াশোনার পাশাপাশি ইনস্টিটিউটগুলোর প্রত্যক্ষ সহযোগিতায় মিলছে খণ্ডকালীন চাকুরীর সুযোগ।এমনকি নিজের পড়াশোনার খরচ মিটিয়ে দেশে টাকা পাঠাচ্ছেন অনেকে।এই চলমান পরিস্থিতি সম্ভাবনার দ্বার খুলে দিয়েছে বাংলাদেশের জন্য। জাপানে পড়াশোনা ও চাকরি বিষয়ে সহায়তা করার জন্য বাংলাদেশে ২০১